বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০

অজান্তে নিজের কত বড় ক্ষতি করছেন জানেন কি?

অনেকেই অফিস বা বাড়িতে ব্যস্ততা অথবা ক্ষুধা লাগার কারণে চটজলদি এক কাপ ইন্সট্যান্ট নুডলস খেয়ে নিজের সময় বাঁচান; কিংবা দ্রুত নিজের ক্ষুধা নিবারণ করেন অতি দ্রুত। কিন্তু আপনি নিজের অজান্তে কত বড় ক্ষতি করে যাচ্ছেন সেটা বুঝতে পারছেন না।

সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা অতিরিক্ত প্রক্রিয়াজাত খাবার বিশেষ করে চিকেন নাগেট এবং ইন্সট্যান্ট নুডলস খেতে অভ্যস্ত তাদের ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার উচ্চ মাত্রার ঝুঁকি রয়েছে।

ফান্সের একদল গবেষক ফ্রান্স এবং ব্রাজিলে এক গবেষণায় প্রাপ্ত তথ্য থেকে রিপোর্টে বলেন, অতিরিক্ত প্রক্রিয়াজাত খাবার ক্যান্সারের  অতিরিক্ত ঝুঁকি বাড়ায়। এই ধরণের খাদ্যগুলো শরীরে পুষ্টির জন্য খারাপ। সর্বমোট ১ লাখ ৫ হাজার মানুষের ওপর এই গবেষণা করা হয়।

ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নালের অনলাইন প্রকাশনা দ্যা বিএমজে-তে প্রকাশিত রিপোর্টটিতে গবেষকরা বলেছেন, অতিরিক্ত প্রক্রিয়াজাত করা খাবার ক্যান্সারের  ঝুঁকির সাথে পুরোপুরি সম্পর্কিত। তারা আরো বলেন, অতিরিক্ত প্রক্রিয়া করা খাবারের মাত্র ১০ শতাংশ ডায়েট হিসেবে বৃদ্ধি পেলেও কিন্তু অন্য সকল ক্যান্সার এবং স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি ১০ শতাংশের চেয়েও বেশী বৃদ্ধি পাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে এই খাবারের কারণে।

যে সকল খাবারে ক্যান্সারের অতিরিক্ত ঝুঁকি রয়েছে-

  • প্যাকেট জাত ব্রেড বা পাউরুটি ও বেকড করা খাবার; যেমন – কেক।
  • সোডা এবং মিষ্টিজাতীয় পানীয়;
  • ইন্সট্যান্ট নুডলস ও স্যুপ;
  • মিষ্টি অথবা মসলাদার প্যাকেট জাতীয় স্ন্যাকস;
  • শিল্পজাত মিষ্টান্ন এবং ডেজার্ট;
  • মাংসের বল, মুরগী ও মাছের নাগেট;
  • অন্যান্য মাংস জাত পণ্য লবণ ছাড়া অতিরিক্ত প্রিজারভেটিবস দ্বারা সংক্ষরণ করা হয়;
  • হিমায়িত বা নিজ থেকে স্থিতিশীল খাবার;
  • যে সকল খাদ্য পণ্য পুরোপুরি বা আংশিক চিনি, তেল ও চর্বি হতে তৈরি;
  • চকলেট বার।

পাস্তা, চিজ ও কৌটাজাত সবজি, যেগুলো কম প্রক্রিয়া করা সে সকল খাদ্য থেকে ক্যান্সারের  ঝুঁকি বাড়ায় না। ফ্রান্সের জাতীয় গবেষণাগারের বার্নার্ড স্রোয়ার ও তার সহকর্মীরা এই সকল তথ্য গুলো বের করেছেন।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত