শুক্রবার, ২৯ অক্টোবর ২০২১

অনলাইন বিজ্ঞাপনে দেশ থেকে বছরে যাচ্ছে ২ হাজার কোটি টাকা

এখন অনলাইনের যুগ। সবকিছু হচ্ছে অনলাইন। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম ও ইউটিউবে পণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচারের মাধ্যমে দেশ থেকে প্রতি বছর প্রায় ২ হাজার কোটি টাকা চলে যাচ্ছে।

সম্প্রতি বাংলাদেশে ফেসবুক তাদের অথরাইজড সেলস পার্টনার নিয়োগ দিয়েছে। এইচটিটিপুল নামের ওই প্রতিষ্ঠানের যারা ক্লায়েন্ট, তারা দেশীয় টাকায় বিল দিতে পারছে। এইচটিটিপুল ভ্যাটসহ অন্যান্য খরচ কেটে রেখে অর্থ পরিশোধ করতে পারছে ফেসবুককে। সরকারও এ খাত থেকে আয় করছে। আগে অবশ্য এই খাতে কোন আয় ছিল না।

জানা যায়, ফেসবুকের সেলস পার্টনার থাকলেও ইউটিউব, গুগল বা অন্যান্য মাধ্যমের জন্য কোনও এজেন্ট বা পার্টনার নেই। ফলে যারা ওইসব মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন তারা বিভিন্ন পেমেন্ট প্রসেসর ব্যবহার করছেন। সেখান থেকে কোন রাজস্ব পায় না সরকার।

ইন্টারনেট দুনিয়ায় বিভিন্ন প্লাটফর্মে বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য প্রয়োজন হয় ইন্টারন্যাশনাল ক্রেডিট কার্ড, অনলাইন পেমেন্ট প্রসেসর পেপাল বা পেয়োনিয়ারের মতো মাধ্যম। দেশে এইচটিটিপুল তাদের অপারেশন শুরু করার পর থেকে বৈধ চ্যানেলেই ফেসবুকে বুস্টিং ও বিজ্ঞাপন প্রকাশের জন্য ডলার বা পেপালে পেমেন্ট করতে হচ্ছে না। দেশীয় মুদ্রায় (লোকাল কারেন্সি) সেসব বিল পরিশোধ করা যাচ্ছে।


© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত