শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯

অনাগত সন্তান

সাকিনা কাইউম

মাগো!
আমি তোমার অনাগত সন্তান বলছি _
জানি না আমার কথা গুলো তুমি শুনবে কিনা। তবুও আজ আমি সব বলবো,সবাইকে বলবো;

তোমার গর্ভে যখন ছিলাম –
নিবিড় বন্ধনে জড়িয়ে রেখেছিলে আমায়।
তোমার উষ্ণতায় এই ছোট্ট শরীরের মাংসপিণ্ডটা

এদিকে ওদিকে ঘুরে বেড়াতো আর ভাবতো-
আমি আছি সবচেয়ে সুরক্ষিত,
অশুভ শক্তি থেকে আড়ালে।
ভেবে ভেবে আমার শরীরের মাংসপিণ্ডটা
আনন্দে সাঁতরে বেড়াতো তোমার অভ্যন্তরে।

কিন্তু একি?
একদিন এক ভয়ানক শব্দ হলো,
আমি চমকে গেলাম!
ওপার থেকে চিৎকারের আওয়াজ ভেসে আসছে!
আমি ভাবলাম আমার “সোনা মা”
তোমার কি কিছু হলো?
কিন্তু না, একটু পরেই বুঝলাম আমাকে কে যেনো খোঁচা দিচ্ছে,
আমাকে টুকরো টুকরো করে ফেলছে–
রক্তাক্ত হয়ে যাচ্ছি আমি!
এরপর সব শেষ।

অন্য এক পৃথিবীতে পৌঁছে গেছি আমি।
ওখানে আমি একা নই মাগো
আমার মতো অনেক দুর্ভাগাই আজ আমার সঙ্গী।
ওরা কেউ কেউ বলে –
আমি মেয়ে বলে
বাবা চায়নি আমি তাদের পৃথিবীতে যাই,
তাই আমায় এই পৃথিবীতে পাঠিয়ে দিয়েছে।
ওরা কেউ কেউ বলে –
আমার মা দুই মিনিটের আনন্দ পাওয়ার জন্য
তার গর্ভে ভুলে আমাকে রেখেছিলো!
আর সেই ভুলের মাশুল হিসেবে
আমাকে এই পৃথিবীতে পাঠিয়ে দিয়েছে।

ওরা কেউ কেউ বলে;
আমার মা’র সাথে পৈশাচিক আচরণ করে
জোর করে মায়ের গর্ভে দিয়ে গিয়েছিল আমায়
ঐ নরপশুগুলো..
তাই মা না চাইতেও আমায় এই পৃথিবীতে পাঠিয়ে দিয়েছে।

কিন্তু মা আমায় কেনো পাঠিয়ে দিলে এই পৃথিবীতে?
আমি আজও জানতে পারলাম না!
তবে আমি খুব খুশি
তোমাদের সেই দুষ্ট পৃথিবীতে না গিয়ে।

মা আমি তোমায় ছাড়া ভালো নেই,
তবে কি আমায় এই আশ্রয়হীন জগতে
পাঠিয়ে দিয়ে তুমি ভালো আছো?

তুমি ভালো থেকো, ভালো থেকো মা।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত