বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২

অন্যরকম ভালোবাসা : মুক্তালিফা রুবা মুক্তা

আমি খুব অবাক হয়েছিলাম সেদিন। অবাক হয়েছিলাম আমার স্বামী-সন্তানের আচরণ দেখে। প্রথম প্রথম রাগও হচ্ছিল ভীষণ। কিন্তু পরক্ষণেই দেখলাম ওরা কত মমতা দিয়ে কুকুরছানাগুলোকে যত্ন করছে। পরম মমতা আর ভালোবাসায়। ভালোবাসার অনুভূতি আসলে অন্যরকম।

আমার বাসার সিড়ির নিচে ছোট্ট একটা গর্ত। সেখানে একটি কুকুর ছয়টা বাচ্চা দিয়েছে কদিন আগে। বাচ্চাগুলোর অবশ্য চোখ ফোটেনি এখনো। এদিকে আমার ছোট ছেলে ছানাগুলোকে রোজ পাহারায় রাখছে। কী হয় না হয়, এ নিয়ে খুব উত্তেজিত সে। সে এত এত ব্যস্ত হয়ে পড়েছে এগুলো নিয়ে যে পড়াশোনা একেবারে ভুলে গেছে মনে হয়। সব বাদ দিয়ে এই নিয়ে আছে। এ পরিস্থিতি দেখে আমি কন্টিনিউ বকাঝকা করছি। কিন্তু কে কার কথা শুনছে!

আমার ছেলে শুধু আমাকে বারবার বলে যাচ্ছে একবার কুকুর ছানার কাছে যেতে। এবার আমি না গিয়ে পারলাম না। দেখলাম ওরা বাপ-বেটা মিলে একটা প্লেট ভরে ভাত তরকারি মিলিয়ে মা কুকুরটাকে খাওয়াচ্ছে। কুকুরটাও খুব আগ্রহ নিয়ে খাচ্ছে। দেখে মনে হল কত দিন বেচারা খায়নি। এই দৃশ্য দেখে আমি আমার চোখের পানি ধরে রাখতে পারিনি। নিজেকে এত অপরাধী মনে হল বুঝাতে পারব না।

আরও অবাক হলাম বাবা কুকুরটাকে দেখে! পশুর মাঝে এত ভালবাসা, এত মানবতা? বাবা কুকুরটা মা কুকুরকে খাওয়ার সুযোগ করে দিচ্ছে বারবার। কোথায় কুকুরটা কাড়াকাড়ি করে খাবার ছিনিয়ে নেবে! তা না করে সুযোগ করে দিচ্ছে! এটা দেখে আমি আরও বিস্মিত হলাম!


© 2022 - Deshbarta Magazine. All Rights Reserved.