শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২

আগের তুলনায় প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে বিটকয়েনের দর

বিশ্বের বৃহত্তম এবং সবচেয়ে প্রচলিত ক্রিপ্টোকারেন্সি বিটকয়েনের সর্বোচ্চ দাম উঠেছিল। ভার্চুয়াল এ মুদ্রা নিয়ে রয়েছে নানারকম বিতর্ক। এবার বিটকয়েনের দর ফের পতন হয়েছে। একদিনের ব্যবধানে মূল্য শতকরা চার ভাগ কমে এটি ৩৫ হাজার ডলারের আশপাশে ওঠানামা করছে। দর পতনের ফলে দুই মাস আগের তুলনায় প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে। গত নভেম্বরে প্রতি বিটকয়েনের মূল্য ৬৯ হাজার ডলারে ছিল।

শুক্রবার হঠাৎ মূল্যপতনে ৩৪ হাজারে ডলারে নামার আগে এটি ৩৫ হাজার ৪৯ ডলারে ছিল। একদিকে মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভ থেকে সুদের হার বৃদ্ধির সম্ভাবনা অপরদিকে মুদ্রাস্ফীতির আশঙ্কায় বিনিয়োগকারীদের ঝুঁকি নেওয়ার প্রবণতা হ্রাস পাওয়ায় মুদ্রাটির বাজার মূল্যের পাগলা ঘোড়া হোঁচট খেয়েছে।

শেয়ারবাজারে পতনের ঢেউ এসে লেগেছে অন্যান্য ঝুঁকি বাণিজ্যের বাজারে। এরই মধ্যে এসএন্ডপি ৫০০ এবং ন্যাসড্যাক গত ২০২০ সালের মার্চে মহামারি শুরু হওয়ার পর সবচেয়ে বড় পতনের মুখোমুখি হয়েছে। ওএএনডিএ-এর আমেরিকা চ্যাপ্টারের সিনিয়র বাজার বিশ্লেষক অ্যাডওয়ার্ড মোয়া শুক্রবার এক গবেষণা নোটে বলেন, শেয়ারবাজারে ভয়াবহ পতনের পর ক্রিপ্টো ব্যবসায়ীরা ঝুঁকিবিমুখ হওয়ার প্রবণতায় বিটকয়েনের মূল্যও হ্রাস পেয়েছে।

‘বিটকয়েন বিপদসীমার মধ্যে রয়েছে এবং যদি এ মূল্য ৩৭ হাজার ডলার পর্যন্ত পৌঁছায় তবে এটি ৩০ হাজার ডলারে যেতে বেশি সময় নেবে না।’ ইথেরিয়াম ব্লকচেইন নেটওয়ার্কের মুদ্রা ইথারের দামও শনিবার ৬.৭ শতাংশ কমে দুই হাজার ৩৯৬ ডলারে পৌঁছেছে।


© 2022 - Deshbarta Magazine. All Rights Reserved.