বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২

আপনি কি ব্রেকফাস্টের সময় এই ভুলগুলো করেন?

সঠিক খাদ্যাভ্যাস ও সুনির্দিষ্ট জীবনধারাই হল সুস্বাস্থ্যের চাবিকাঠি।

জটিল রোগ ইতিমধ্যেই যাঁদের শরীরে বাসা বেঁধেছে, তাঁদের আরও সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। পুষ্টিবিদদের মতে, গোটা দিনের মধ্যে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ মিল হল ব্রেকফাস্ট। সকালের খাবারের উপরেই নির্ভর করে শরীর কতটা সুস্থ থাকবে। তাঁদের মতে, ব্রেকফাস্টের সময় রোজ এমনকিছু ভুল অনেকেই করেন, যা থেকে ব্লাড সুগার লেভেল আরও বেড়ে যেতে যায়। বিশেষত ডায়াবেটিস রোগীদের এই ধরনের ভুল কখনই করা উচিত নয়। সেগুলো কী কী?
১. ডিনারের পর ৮ থেকে ১০ ঘণ্টা পেট খালি থাকে। তাই সকালে উঠে অবশ্যই চটজলদি ব্রেকফাস্ট সারা উচিত। ব্রেকফাস্ট স্কিপ করলে আরও বহুক্ষণ পেট খালি থাকে, যা ব্লাড সুগার লেভেল বাড়িয়ে দেয়।
২. ফলের রস বা স্মুদির বদলে গোটা ফল খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। জুসের বদলে গোটা ফল খেলে সমস্ত পুষ্টিগুণ শরীরে সঠিক মাত্রায় পৌঁছয়। তাছাড়াও ফলের রস আরও খিদে বাড়িয়ে দেয়।
৩. কম ফ্যাট রয়েছে এমন খাবার বেছে নিতে পারেন। একেবারেই কোনও ফ্যাট নেই এমন খাবারে ক্যালোরির পরিমাণ বেশি থাকে। তাই সকালে অল্প ফ্যাট রয়েছে এমন খাবার খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন পুষ্টিবিদরা।
৪. কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার ব্লাড সুগার লেভেল অনেকটাই বাড়িয়ে দেয়। সেই কারণে কার্বোহাইড্রেটের সঙ্গে প্রোটিন জাতীয় খাবার মিশিয়ে খেলে অনেকক্ষণ পেট ভর্তি থাকবে।
৫. সকালের খাবার অবশ্যই ফাইবার যুক্ত হওয়া উচিত। পেট ভর্তি রাখে, পাশাপাশি ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার খেলে ব্লাড সুগার লেভেলও বাড়ে না। কোলেস্টেরলও নিয়ন্ত্রণে থাকে।
৬. প্রোসেসড খাবারে পুষ্টিগুণ কম, বরং কার্বোহাইড্রেট বেশি থাকে। ব্রেকফাস্টে এগুলো সম্পূর্ণ এড়িয়ে যেতে বলছেন বিশেষজ্ঞরা।


© 2022 - Deshbarta Magazine. All Rights Reserved.