মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

আফগানিস্তানে ঐকমত্যের সরকার গঠন করবে তালেবান

সব জাতি-গোষ্ঠীর নেতাকে অন্তর্ভুক্ত করে আফগানিস্তানে একটি ঐকমত্যের সরকার গঠন করবে তালেবান। কেয়ারটেকার ধাঁচের এ সরকারে সব পক্ষের অংশগ্রহণ থাকবে। 

শুক্রবার কাতারের রাজধানী দোহায় তালেবানের রাজনৈতিক দফতর থেকে এ কথা জানানো হয়েছে। খবর আল জাজিরার। 

মার্কিন সেনা প্রত্যাহার শেষ হওয়ার পর সেপ্টেম্বরের প্রথম দিকেই নতুন সরকার গঠন সম্পন্ন করতে চায় তালেবান। সেই লক্ষ্যেই প্রাথমিক আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন তালেবানের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও বর্তমানে উপপ্রধান মোল্লা আবদুল গনি বারাদার, তালেবান প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা মোহাম্মদ ওমরের ছেলে ও অন্যতম উপপ্রধান মোল্লাহ মোহাম্মদ ইয়াকুব এবং সশস্ত্র গোষ্ঠী হাক্কানি নেটওয়ার্কের নেতা ও উপপ্রধান সিরাজুদ্দিন হাক্কানি। এর মধ্যে প্রথম দুজন গত সপ্তাহে রাজধানী কাবুলে ফিরে আসেন।

তালেবান সূত্রগুলো বলেছে, নতুন সরকার নির্বাহী কাউন্সিলের সদস্য হিসাবে অন্তত এক ডজন নাম বিবেচনা করা হচ্ছে। সরকারে ‘আমিরুল মুমিনিন (বিশ্বাসীদের নেতা)’ বলে একটি পদ তৈরি করা হবে যিনি ‘ইসলামিক ইমিরেট অব আফগানিস্তান’র প্রধান হিসাবে নেতৃত্ব দেবেন। পদটিকে প্রেসিডেন্টের বিপরীত ভার্সন। 

আফগানিস্তানে পরবর্তী সরকারের আমির পদে কে বসবেন, সে বিষয়ে এখনও আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত নেননি তালেবান নেতারা। তবে সংগঠনের রাজনৈতিক শাখার প্রধান মোল্লা আব্দুল গনি বারাদার ওই পদে বসতে পারেন বলে ইঙ্গিত মিলেছে। 


© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত