রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২

আফ্রিকায় তীব্র ক্ষুধার মুখে ১ কোটি ৩০ লাখ মানুষ

বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি জানায় খরা পরিস্থিতি হর্ন অফ আফ্রিকা বা আফ্রিকা শৃঙ্গের দেশগুলোর আনুমানিক ১ কোটি ৩০ লাখ জনগণকে চরম ক্ষুধার মুখে ঠেলে দিয়েছে ।

সংস্থাটি মঙ্গলবার জানায় ১৯৮১ সাল থেকে এ নাগাদ সোমালিয়া, ইথিওপিয়া ও কেনিয়া অঞ্চলের জনগণ সবচাইতে শুষ্ক আবহাওয়া পরিস্থিতির মুখোমুখি। এই তীব্র মানবিক সঙ্কট এড়াতে সংস্থাটি অবিলম্বে সহায়তার আবেদন জানিয়েছে।

খরা পরিস্থিতি ইথিওপিয়ার দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্বাঞ্চল, কেনিয়ার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল ও উত্তরাঞ্চল এবং সোমালিয়ার দক্ষিণ মধ্যাঞ্চলের আবাদি পশুচারণভিত্তিক কৃষক সম্প্রদায়কে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। অপুষ্টির হার এসব এলাকায় এখন অতি উঁচু।

ডব্লিউএফপি বা বিশ্ব খাদ্য কার্যক্রম জানায় পরবর্তী ৬ মাসে ৪০ লক্ষ ৫০ হাজার জনগণের জন্য তাদের প্রয়োজন ৩২ কোটি ৭০ লক্ষ ডলার, যা তীব্র আবহাওয়া পরিস্থিতি মোকাবেলায় তাদেরকে আরো সমর্থ করে তুলবে।

বিবৃতিতে সংস্থাটি জানায় “পরপর ৩টি শুষ্ক বর্ষা মরশুম তাদের ফসল বিনষ্ট করেছে এবং যার কারণে অস্বাভাবিক হারে গবাদি পশুর মৃত্যু হয়েছে। পানি ও চারণভূমির সঙ্কট বহু পরিবারকে ঘর ছাড়তে বাধ্য করেছে এবং যার কারণে সৃষ্টি হয়েছে নানা সম্প্রদায়ের মধ্যে সংঘাত”।

সংস্থাটি জানায় আগামী মাসগুলিতে গড়ে আরো কম বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস পরিস্থিতিকে আরো খারাপ করার হুমকি তৈরি করেছে।

জাতিসংঘের শিশু সংস্থা ফেব্রুয়ারির শুরুতে জানায় মার্চের মাঝামাঝি নাগাদ ইথিওপিয়ার ৬০ লক্ষের অধিক জনগণের জন্য জরুরি মানবিক সহায়তার প্রয়োজন রয়েছে। সোমালি এনজিও কনসোর্টিয়ামের হিসাব অনুযায়ী পার্শ্ববর্তী দেশ সোমালিয়ায় ৭০ লাখের বেশি মানুষের প্রয়োজন এখন জরুরি সহায়তা।


© 2022 - Deshbarta Magazine. All Rights Reserved.