রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২

আবারও বাংলাদেশি কর্মী নেওয়া শুরু কোরিয়ার

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস মহামারী শুরুর প্রেক্ষাপটে ২০২০ সালের মার্চে বিদেশী কর্মী নেওয়া স্থগিত করেছিল দক্ষিণ কোরিয়ার সরকার। এরপর প্রায় ২১ মাস পর গত ডিসেম্বর থেকে আবারো বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেওয়া শুরু হয়।

গত ৫ জানুয়ারি মোট ৯২ জন রেগুলার ও কমিটেড কর্মী কোরিয়া গেছেন।এরই মধ্যে এ পর্যন্ত প্রায় ৩৫৩ জন বাংলাদেশী ইপিএস কর্মী দক্ষিণ কোরিয়ায় গেছেন। গত মার্চে দক্ষিণ কোরিয়ায় যান প্রায় ১৫০ জন বাংলাদেশী কর্মী।

নতুন বছরে যে ৯২ জন কর্মী দক্ষিণ কোরিয়া গেছেন, তাদের মধ্যে ৪৪ জন কর্মী নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত এবং বাকিরা পুরনো কর্মী।

বাংলাদেশসহ ১৬ টি দেশ থেকে ইপিএস (এমপ্লয়মেন্ট পারমিট সিস্টেম) প্রোগ্রামের মাধ্যমে মাঝারি ও নিম্ন-দক্ষ বিদেশী কর্মী নিয়ে থাকে দক্ষিণ কোরিয়া সরকার।

কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে দক্ষিণ কোরিয়া সরকার ইপিএস কর্মী নিয়োগ স্থগিত করে দেয়।ওই ১৬ টি দেশের ব্যাপক আহ্বান ও অনুরোধে সাড়া দিয়ে আবারো সীমিত পরিসরে কর্মী নেওয়া শুরু করেছে দক্ষিণ কোরিয়া।


© 2022 - Deshbarta Magazine. All Rights Reserved.