বুধবার, ১২ মে ২০২১

ঋণ বিতরণে ব্যাংকগুলোর অনীহা রয়েছে

করোনায় অর্থনৈতিক ক্ষতি মোকাবিলায় ১৯টি প্যাকেজের আওতায় ১ লাখ ৩ হাজার ১১৭ কোটি টাকার প্রণোদনা ঘোষণা করেছে সরকার। এর মধ্যে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ঋণ বিতরণ করা হবে ৭৬ হাজার কোটি টাকা। এসব ঋণ গ্রহণে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী এবং উদ্যোক্তাদের আগ্রহ অনেক বেশি। ব্যাংকগুলোয় আবেদনও জমা পড়েছে।

কিন্তু ব্যাংকগুলোর অনীহার কারণ ঋণ বিতরণ হচ্ছে না। রপ্তানি উন্নয়ন তহবিলের বাড়তি ১৩ হাজার কোটি টাকা বাদ দিয়ে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর যে ৬৩ হাজার কোটি টাকা ঋণ বিতরণ করার কথা তার মধ্যে করেছে মাত্র ৯ হাজার কোটি টাকা। এমনও প্যাকেজ আছে যে কেনো ঋণ বিতরণ শুরুই হয়নি। শুধু একটি প্যাকেজ ছাড়া অন্যগুলোর ঋণ বিতরণ একেবারেই তলানিতে। উদ্যোক্তারা বলছেন, ব্যাংকগুলো ঋণ দিতে চাচ্ছে না। আর ব্যাংকগুলো বলছে, যাচাই-বাছাই করে ঋণ দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রণোদনা প্যাকেজ বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তাদের জন্য সর্বমোট ৮টি প্যাকেজের আওতায় ৭৮ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা দেওয়া হবে। এর মধ্যে রপ্তানি উন্নয়ন তহবিলের (ইডিএফ) আকার ১২ হাজার ৭৯০ কোটি টাকা বৃদ্ধি এবং এপ্রিল ও মে মাসের স্থগিত সুদের ভতুর্কি হিসেবে ২ হাজার কোটি টাকা সরকারিভাবে বিশেষ পদ্ধতিতে দেওয়া হবে। বাকি ৬টি প্যাকেজের আওতায় ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ঋণ বিতরণ করা হবে ৬৩ হাজার কোটি টাকা।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত