বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২

একুশ এসেছিল : ইসরাত জাহান ইতি

একুশ এসেছিল মৃতপ্রায় গাছে বসন্তের পাখি হয়ে,
একুশ এসেছিল মায়ের বুলিতে কথার ডালি সাজিয়ে,
একুশ এসেছিল আমার ভাইয়ের তাজা খুন ঝরিয়ে,
একুশ এসেছিল রক্ত-কলমে বাংলার নাম লিখতে,
একুশ শিখিয়েছিল আমরাও পারি হানাদারদের রুখতে।

একুশ শিখিয়েছিল,একটি জাতিকে হতে এক ও অভিন্ন
একুশ হয়েছ বাঙ্গালীর আত্মপ্রতিষ্ঠার এক প্রতীকী লগ্ন।
একুশ শিখিয়েছিল, দুর্দিনে জাতিকে দৃঢ় ও সংহত হতে,
একুশ শিখিয়েছিল, কাধে কাধ মিলয়ে চলতে একই পথে।

একুশ এনেছিল মাতৃভাষায় স্বাধীনভাবে কথা বলার অধিকার,
একুশ আমাদের বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করার দৃঢ় অঙ্গীকার।
হৃদ-কেটে দেখো, একুশের জন্যে জমিয়েছি ভালোবাসার পাহাড়।
তাইতো একুশ হয়েছে বাংলার রক্তাক্ত বুকের প্রতীক পূর্ণতার,
একুশ হয়েছে তাই একাত্তরের স্বাধীনতা অর্জনের হাতিয়ার।

একুশ মানেই রফিক , সালাম, বরকতসহ অগুনতি ভাইয়ের তাজা স্মৃতি,
একুশ মানেই ভেতো নাম কাটিয়ে নিজেদের চেনানোর কাব্যগীতি।

একুশ মানেই স্বাধীনতার সেই রক্তলাল সূর্য,
একুশ মানেই জাগিয়ে তোলার মোক্ষম রণতূর্য।
তাইতো একুশ আমাদের স্বাধীনতার সোপান,
একুশ আমাদের গর্ব, স্মৃতিতে চির অম্লান।


© 2022 - Deshbarta Magazine. All Rights Reserved.