শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১

কলকারখানা খুলছে : ঢাকামুখী শ্রমিকদের জনস্রোত

কলকারখানা খুলছে। ঢাকায় ভয়াবহ জটলাবাঁধা মানুষের স্রোত। ফেরিতে-গাড়িতে শত শত শ্রমিকে ঠাসা। ট্রাক-পিকআপ, ভ্যানেও গাদাগাদি। নেই স্বাস্থ্যবিধির ছিটেফোঁটাও। পথে পথে শ্রমিক পরিচয় দেয়ায় চেকপোস্টেও কাউকে আটকানো হয়নি।

বিধিনিষেধের মধ্যে শ্রমিকরা কীভাবে ঢাকায় আসছেন, সেটা নীতিনির্ধারকদের মাথায় কীভাবে ছিলো— এ নিয়ে দেশের অভিজ্ঞ মহল প্রশ্ন তুলেছে। কারণ ১৫ দিন সব শিল্প-কারখানা বন্ধ থাকবে, এই ঘোষণা দিয়ে তাদের বাড়ি পাঠানো হয়েছে। শ্রমিকদের এভাবে অনিশ্চয়তার মধ্যে ফের ঢাকায় ঢোকা মানবাধিকার লঙ্ঘন বলেও কেউ কেউ মনে করছেন।

ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের উদ্যোগে গত বৃহস্পতিবার কিছু ব্যবসায়ী মন্ত্রিপরিষদ সচিবের সঙ্গে বৈঠক করে যত দ্রুত সম্ভব শিল্প-কারখানা খুলে দেয়ার অনুরোধ করেন। সরকারও তাদের অনুরোধ গ্রহণ করে। কিন্তু শ্রমিকের ফেরা নিয়ে রাষ্ট্র কিংবা মালিক কেউ ভাবেনি বলে অভিযোগ শ্রমিকদের।

চাকরি বাঁচাতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তারা ঢাকায় ঢুকছেন। দেশের বড় একটি অংশ প্রশ্ন তুলে বলছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বাধ্যতামূলক বন্ধ, কিছু অফিস বন্ধ, পাবলিক ট্রান্সপোর্ট বন্ধ, আর সবকিছু চালু।

মানুষ বাইরে ঘুরছে-ফিরছে। শিশু-কিশোর-তরুণরা খোলা জায়গায় ফুটবল-ক্রিকেট খেলছে। অনেকে দোকানে বসে চা পান করছে, সিগারেট ফুঁকছে আর আড্ডা দিচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে জটলাবাঁধা শ্রমিকের দৃশ্যও এখন ভাবাচ্ছে কোভিড মোকাবিলা নিয়ে।


© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত