শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯

কৃষককে বাঁচাতে আসছে ‘শস্য বীমা’

প্রাকৃতিক দুর্যোগে ফসলের ক্ষতি থেকে কৃষককে বাঁচাতে আসছে ‘শস্য বীমা’। পরীক্ষামূলকভাবে এ বীমা চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট বক্তৃতায় তিনি এ তথ্য জানান।

গত বছর কৃষি খাতের বরাদ্দ ছিল ১২ হাজার ৭৯২ কোটি টাকা। প্রস্তাবিত বাজেটে তা ১ হাজার ২৬১ কোটি টাকা বাড়িয়ে ১৪ হাজার ৫৩ কোটি টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে। অর্থমন্ত্রী অসুস্থ থাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাজেট বক্তৃতার এ অংশটুকু পড়েন। আগামী অর্থবছরে উন্নয়ন ও অনুন্নয়ন মিলে জাতীয় বাজেটের আকার ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকা।

অর্থমন্ত্রী বলেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগে ফসলহানির ঘটনা নিত্যনৈমিত্তিক। এ থেকে সৃষ্ট আর্থিক ক্ষতি থেকে কৃষকদের রক্ষায় ‘শস্য বীমা’ একটি পাইলট প্রকল্প হিসেবে চালু করা হবে। এছাড়া বৃহৎ প্রকল্পের মাধ্যমে সৃষ্ট সম্পদের বীমা দেশীয় বীমা কোম্পানির মাধ্যমে সম্পন্ন করতে হবে। প্রয়োজনে একাধিক কোম্পানির সঙ্গে যৌথ বীমা সম্পাদনের ব্যবস্থা করা হবে। লস অব প্রফিটের জন্য বীমা চালুর উদ্যোগ নেয়া হবে। কারখানা শ্রমিকদের জন্য দুর্ঘটনাজনিত বীমা বাস্তবায়ন করা যেতে পারে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, সরকার গবাদিপশু বীমা চালু করা, দরিদ্র নারীদের ক্ষুদ্র বীমার আওতায় আনার মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়ন বৃদ্ধি করা এবং সরকারি কর্মচারী ও সাধারণ মানুষের জন্য স্বাস্থ্য বীমা চালুর পরিকল্পনা করেছে। বীমা খাতে ডিজিটাইজেশন ও এর পেনিট্রেশন বৃদ্ধির পরিকল্পনা করা হয়েছে। জীবন বীমা আমাদের দেশে অনেক দুর্বল।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত

error: Content is protected !!