শনিবার, ৩০ মে ২০২০

কয়েদি

ফাইজা হাবীব নীবুলা

এখানের জীবনে কোনো ব্যস্ততা নেই;
নেই কোনো হুড়োহুড়ি, আছে শুধু একরাশ নিস্তব্ধতা।
আর আছে সময়ের স্থবিরতা,
জেলখানার দেয়ালগুলো ছাড়া
কেউ হাহাকার শোনে না।

আমি দুইশত ছিয়াশি, কারাগার থেকে বলছি,
আমার বৃদ্ধ বাবা মা বেঁচে আছে কিনা তাও জানি না।
কিশোর ভাইয়ের চেহারা ভুলতে বসেছি।
রেশমীর হাসি আর স্থবিরতা আমার জীবনের সত্যতা।

প্রেমের মানুষকে নিয়ে ঘর বাধার স্বপ্ন দেখেছিলাম;
শাড়ী, চুড়ি, আলতার সদাই এনেছিলাম;
রাতের অন্ধকারে লুট হলো সম্মান, ভালোবাসা।
টর্চের ক্ষীণ আলোয় লুটেরার পরিচয় হলো ফাস,
ডাকাতদের ক্ষনিকের জিঘাংসায় খুন হলো সম্ভ্রম,
ক্ষমতার আড়ালে পার পেল নরপিশাচেরা,
রেশমির সে আকুতি ভরা চিৎকার ঘুমাতে দিত না আমায়
তাই তো আইনের তোয়াক্কা না করে শাস্তি দিলাম নিজ হাতে।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত