মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

Advertisement

চিকিৎসায় বিলম্বে ডেঙ্গুতে মৃত্যু বাড়ছে

Advertisement

ধানমণ্ডির মধুবাজার এলাকার বাসিন্দা আব্দুল বারেকের মেয়ে আয়েশা আক্তার গত ৪ আগস্ট জ্বরে আক্রান্ত হন। দু’দিন পর স্থানীয় ইবনে সিনা ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরীক্ষায় তার ডেঙ্গু শনাক্ত হয়। এ অবস্থায় ৬ আগস্ট ঢাকা শিশু হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে।

কিন্তু সেখানে আয়েশার অবস্থার অবনতি হতে থাকে। হাসপাতাল থেকে রক্তের বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে দেওয়া হয়। যার কয়েকটি শিশু হাসপাতালেই এবং কয়েকটি শ্যামলী পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে করা হয়। পপুলারে করা পরীক্ষার রিপোর্ট সন্ধ্যায় পাওয়া গেলেও শিশু হাসপাতালের রিপোর্ট পাওয়া যায় পরদিন সকাল ১০টার দিকে। ততক্ষণে আয়েশার অবস্থার আরও অবনতি ঘটেছে। সে দিন দুপুরেই আইসিইউতে নেওয়া হয় তাকে।

আয়েশার বাবা আব্দুল বারেক জানান, চিকিৎসকরা তাকে জানিয়েছেন, আয়েশার রক্তে প্লাটিলেটের মাত্রা অস্বাভাবিকভাবে কমে গিয়েছিল। এ ছাড়া ইন্টারন্যাল হেমারেজ হচ্ছিল। তাই তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়েছে। রাতে তাকে লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয়। যদিও তা জানানো  হয়নি তাকে। ৮ আগস্ট মারা যায় সে।

আব্দুল বারেকের অভিযোগ, পরীক্ষা-নিরীক্ষার রিপোর্ট পেতে দেরি হওয়ায় চিকিৎসকরা দ্রুত চিকিৎসা শুরু করতে পারেননি। এ কারণে তার মেয়ের মৃত্যু হয়েছে।

Advertisement


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত