সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯

চীনে স্মার্টফোন কারখানা গুটিয়ে নিচ্ছে স্যামসাং

চীনের বাজারে স্মার্টফোন কোম্পানিগুলোর সঙ্গে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে না পেরে নিজেদের ফোন উৎপাদনের কারখানাটি বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে স্যামসাং। এ মাসের শেষের দিকে কারখানাটি বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে স্যামসাং-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়।

কারখানাটিতে কত ইউনিট ফোন উৎপাদন করা হতো এবং কতজন কর্মী কাজ করতেন সে বিষয়েও কোন তথ্য জানায়নি স্যামসাং। জুন মাসে হাংঝু শহরের কারখানাটির উৎপাদন ক্ষমতা কমানো হয়। এছাড়া ২০১৮ সালের শেষের দিকে কোম্পানিটি চীনে থাকা তাদের কারখানাগুলোর একটিতে উৎপাদন বন্ধ করে দেয়। 

গবেষণা প্রতিষ্ঠান কাউন্টার পয়েন্টের তথ্য অনুযায়ী- চীনে জনপ্রিয় স্মার্টফোন হচ্ছে শাওমি, ওয়ানপ্লাস ও হুয়াওয়ে। আর এসব স্মার্টফোনের কারণে চীনে পিছিয়ে পড়ছিলো স্যামসাং এর বিক্রি। ২০১৩ সালের প্রথম দিকে তাদের মার্কেট শেয়ার ছিলো ১৫ শতাংশ। যেখানে এ বছরের প্রথম দিকে তাদের মার্কেট শেয়ার নেমে আসে মাত্র ১ শতাংশে।

স্যামসাং এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, চীনে প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া মোটেও সহজ ছিলো না। ফোন তৈরিতে ব্যবহৃত যন্ত্রগুলো এখন বিশ্বের অন্য কোনো দেশে স্থানান্তরিত করা হবে। কোন দেশে কারখানাটি প্রতিষ্ঠা করা হবে তা নির্ভর করবে সেই দেশের বাজারে স্যামসাং ফোনের চাহিদার উপর।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, চাহিদা ও উৎপাদন খরচের উপর ভিত্তি করে ভারত বা ভিয়েতনামে কারাখানা স্থানান্তর করার পরিকল্পনা করছে স্যামসাং।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত

error: Content is protected !!