শুক্রবার, ২৯ অক্টোবর ২০২১

দিন দিন কমে যাচ্ছে পান চাষের পরিমাণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় পান চাষে ব্যাপক সম্ভাবনা থাকলেও পৃষ্ঠপোষকতার অভাবসহ নানা কারণে দিন দিন কমে যাচ্ছে পান চাষের পরিমাণ। একদিকে উৎপাদন খরচ বৃদ্ধি অপর দিকে প্রকৃতিক দুর্যোগ ক্ষতিগ্রস্ত চাষীদেরকে সরকারি প্রণোদনা দেয়ার ব্যবস্থা না থাকায় সুস্বাদু বাংলা পান চাষে আগ্রহ হারাচ্ছেন এখানকার চাষীরা।

উপজেলার শ্যামগ্রাম ইউনিয়নের শতাধিক পরিবার বহুকাল ধরে পান চাষে জড়িত রয়েছে। এ পান স্থানীয়দের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়। এর চাহিদাও প্রচুর। এ অঞ্চলে পানের পরিকল্পিত চাষাবাদ ঘুরিয়ে দিতে পারে স্থানীয় বারই সম্প্রদায়ের ভাগ্যের চাকা। জাতীয় অথর্নীতিতেও রাখতে পারে বিশাল ভূমিকা। এক সময় শ্যামগ্রাম ইউনিয়নের শ্রীঘর, শাহবাজপুর এবং শ্যামগ্রামে পানের বরজ থাকলেও এখন তা অনেকটা কমে এসেছে।

পূর্ব পুরুষের পেশা হিসেবে এখনো যারা পানের বরজ নিয়ে আছেন তাদের মধ্যে একজন হচ্ছেন মনোরঞ্জন দত্ত। পান চাষে এ প্রতিবেদককে জানান,পান চাষের জন্য সরকারি কোনো সাহায্য সহায়তা পাইনা আমরা।সরকারি সাহায্য না পাইলে বাপ দাদার আদি ব্যবসায় আমরা খুব বেশী দিকতে পারতাম না। ঝড়-জলোচ্ছ্বাস যে কোনো দুর্যোগে ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হলে সরকার তাদের সহায়তা করে কিন্তু পানের বরজ ক্ষতিগ্রস্ত হলে চাষীদের পাশে কেউ দাঁড়ায় না।


© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত