শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি ২০২২

দেশে ডিজিটাল ক্ষুদ্র ঋণ সেবার যাত্রা শুরু

মোবাইল আর্থিক সেবা প্রতিষ্ঠান (এমএফএস) বিকাশের গ্রাহকেরা এখন থেকে তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষুদ্রঋণ নিতে পারবেন। গ্রাহকদের ডিজিটাল উপায়ে তাৎক্ষনিকভাবে জামানতবিহীন ঋণ দেবে বেসরকারি খাতের দ্য সিটি ব্যাংক লিমিটেড। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ ডিজিটাল ক্ষুদ্রঋণের (ন্যানো লোন) যুগে প্রবেশ করলো।

বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করে গ্রহাকদের ঋণ নিতে হবে। এই ঋণের আওতায়, ঋণ প্রাপ্তির যোগ্যতা সাপেক্ষে গ্রাহক তাৎক্ষণিকভাবে বিকাশ অ্যাকাউন্টে ৫০০ থেকে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত সিটি ব্যাংকের জামানতবিহীন ডিজিটাল ন্যানো লোন পাবেন। বার্ষিক ৯ শতাংশ ইন্টারেস্টে ৩টি মাসিক ইনস্টলমেন্টে বিকাশ অ্যাপ থেকে ঋণ পরিশোধও করতে পারবেন ঋণগ্রহীতারা।

বুধবার ঢাকার একটি পাঁচতারকা হোটেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক এই ডিজিটাল ঋণ সেবা কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। এ সময় তিনি বলেন, ‘ব্যাংকিং সেবার বাইরে থাকা মানুষের জন্য ব্যাংকের জামানতবিহীন তাৎক্ষণিক ঋণ পাওয়ার সুযোগ-এটাই ডিজিটাল বাংলাদেশের সফলতার গল্প। কেন্দ্রিয় ব্যাংকের নীতি সহায়তায় সিটি ব্যাংক ও বিকাশের এই যুগান্তকারী উদ্যোগ দরিদ্র মানুষের ঋণ প্রাপ্তিকে সহজ করবে।’ তিনি অন্যান্য বাণিজ্যিক ব্যাংকেও এভাবে ডিজিটাল ক্ষুদ্র ঋণ চালু করার আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু ফরাহ মো. নাছের বলেন, সরকারের অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনীতির কল্যাণে বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাত এখন আরও বেশি জনবান্ধব, আরও বেশি ডিজিটাল। ডিজিটাল ন্যানো লোন সেবা অর্থনৈতিক অন্তর্ভুক্তিকরণকে আরও বেগবান করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, গ্রাহকের বিকাশ লেনদেন এবং সিটি ব্যাংকের ক্রেডিট রিস্ক ম্যানেজমেন্ট পলিসির উপর ভিত্তি করে ঋণ পাওয়ার উপযুক্ততা এবং ঋণের পরিমান নির্ধারিত হবে। ডিজিটাল ন্যানো লোন চালু উপলক্ষে সিটি ব্যাংক ঋণগ্রহীতাদের কাছে থেকে পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত কোনো প্রসেসিং ফি নেবে না।


© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত