মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

পূর্বজন্মের কবিতা || মারুফ আহম্মেদ নয়ন

জলের গভীরে ডুবে আছি এ জন্ম,শরীরে কোন পচনের চিহ্ন নেই,পাথরে পাথরে শুধু শ্যাওলা,মাছেরা গিলে নিচ্ছে জলের বুদ বুদ,পূর্বজন্মে আমি এক মৎস্যকুমারীর প্রেমে পড়েছিলাম,মূলত সে ডেকে নিয়েছিলো এভাবে গোপনে, সংসার ছেড়ে পালিয়ে এলাম গৃহ ত্যাগী সিদ্ধার্থ,এই জলের কিনার ঘেঁষে মখমলে বিছানা পেতে এতোকাল শুধু তোমার ধ্যান করেছি,পায়ের নখ থেকে শুরু করে লবণাক্ত শরীর বারবার ছুঁয়ে গেছে সমুদ্রের লোনা জলে,কতবার নৃত্যরত নর্তকীরা নেচে গেলো শরীরের ইশারা ইঙ্গিতে,কতকাল এভাবে ধ্যানে মগ্ন ছিলাম,কে জানে,আজ বহুকাল পরে এ মানুষ জন্মের ঘুম ও ঘোর কেটে গেলে,তোমাকে দেখতে পাচ্ছিনা,হে মৎস্য কন্যা,হে মায়াবী মানবী,শরীর জুড়ে শুধু লেপে আছে আমিষের আশঁটে গন্ধ।


© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত