শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি ২০২২

প্রথমদিনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনলেন ৬২৩ নারী

একাদশ সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য হতে প্রথম দিনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন ৬২৩ জন। মঙ্গলবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত দলীয় সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন তারা। এর আগে, সকালে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

জানা যায়, প্রথম দিনে ঢাকা, রাজশাহী, বরিশাল, ময়মনসিংহ বিভাগের বুথে মোট ৩৪৬টি ফরম বিক্রি হয়। আর রংপুর, সিলেট, চট্রগ্রাম খুলনা বুথে ২৭৮টি ফরম বিক্রি হয়। প্রতিটি ফরমের মূল্য ছিল ৩০ হাজার টাকা।

এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ জানান, সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করার আগ পর্যন্ত দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি চলবে।

প্রথমদিন যারা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন তাদের মধ্যে রুপালী পর্দার বেশ কয়েকজন তারকা রয়েছেন। তারা হলেন- সারাহ বেগম কবরী, সুবর্ণা মোস্তফা, অপু বিশ্বাস, জ্যোতিকা জ্যোতি, শমী কায়সার, শাহানুর, সুজাতা প্রমুখ।

এছাড়াও সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য হতে মনোনয়ন নিয়েছেন আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ফজিলাতুন্নেসা ইন্দিরা, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া খাতুন, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম, যুব মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার।

এ তালিকায় আরো রয়েছেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি প্রয়াত আব্দুল আজিজের স্ত্রী রাবেয়া আজিজ, সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসিনা দৌলা, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক বিশেষ সহকারী প্রয়াত মাহবুবুল হক শাকিলের স্ত্রী নিরুফা আঞ্জুম পপি, যুব মহিলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক রোজিনা নাসরিন, সাবেক সাংসদ ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পি, কক্সবাজারের নেত্রী মনোয়ারা মুন্নি, সাবেক সাংসদ নুরজাহান বেগম মুক্তা ও ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ।

দেশে ৩৫০ আসনের সংসদে ৫০টি আসন নারীদের জন্য সংরক্ষিত। ৩০০ আসনে সরাসরি ভোট হলেও সংরক্ষিত আসন বণ্টন হয় ভোটে জয়ী দলগুলোর আসন সংখ্যার অনুপাতে। আনুপাতিক প্রতিনিধিত্ব পদ্ধতিতে এবার আওয়ামী লীগ ৪৩টি, জাতীয় পার্টি ৪টি, বিএনপি ১টি, ওয়ার্কার্স পার্টি ১টি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জোটভুক্ত হয়ে ১টি সংরক্ষিত আসন পেতে পারেন।

নির্বাচন কমিশন ইতোমধ্যে জানিয়েছে, আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে। এ নির্বাচনের ভোটের জন্য একটি দিন রাখা হলেও ফল জানা যায় তার আগেই। ৫০টি সংরক্ষিত নারী আসনের বিপরীতে দল ও জোটগতভাবে সমান সংখ্যক প্রার্থী মনোনয়ন দেয়া হবে বলে প্রত্যাহারের সময়সীমা পার হওয়ার দিনই তাদের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হতে পারে।


© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত