বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯

প্রথমবারের মতো জবিতে শ্যামা পূজার আয়োজন

ইমরান হুসাইন, জবি প্রতিনিধি, দেশবার্তা

প্রথম বারের মতো জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে উল্লাসের সাথে আয়োজিত হয়েছে শ্যামা পূজা। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক থেকে শুরু করে রাস্তার দুই পাশে মোমবাতি সাজানো হয়েছে নানা রকম নকশাতে।এছাড়া শহীদ মিনার, শান্ত চত্তর থেকে শুরু করে কাঠালতলা পর্যন্ত সাজানো হয়ে মোমবাতি প্রজ্জলনের মাধ্যমে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কাঠালতলাতে গড়ে তুলেছেন শ্যামা পূজার প্রতিমা।পুজা মন্ডবকে কেন্দ্র করে ভিড় জমিয়েছে সনাতনধর্মীয় শিক্ষার্থীরা। সবাই মেতে উঠেছেন  শ্যামা পূজার অনন্দে। তাদের কাছে এই শ্যামা পূজার মহত্ত্ব এবং অনুভূতি জানতে চাইলে তারা বলেন,হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শ্যামা পূজা ও দীপাবলি উৎসব। কার্তিকের অমাবস্যা তিথিতে হয় এ পূজা। অধিকাংশ দেব-দেবীর পূজা দিনে হলেও শ্যামা বা কালীপূজা হয় রাতে।

হিন্দু পুরাণমতে, কালী দেবী দুর্গারই একটি শক্তি। সংস্কৃত ভাষার ‘কাল’ শব্দ থেকে কালী নামের উৎপত্তি। এ দেবী তার ভক্তদের কাছে শ্যামা, আদ্য মা, তারা মা,  কালী, দেবী মহামায়াসহ বিভিন্ন নামে পরিচিত।

দুষ্টের দমন ও শিষ্টের পালনের মাধ্যমে ভক্তের জীবনে কল্যাণের অঙ্গীকার নিয়ে পৃথিবীতে আগমন ঘটে দেবী শ্যামার। তাই তিনি শান্তি, সংহতি ও সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে সংগ্রামের প্রতীক।আর তাই সকলের আগামী দিনের জীবনকে সুন্দর করে তুলতে তারা শ্যামা পূজাকে অতি আনন্দের সাথে পালন করে।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত