সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১

প্রবাসীদের অনিশ্চয়তায় ফেলেছে করোনার নতুন ধরন

করোনার নতুন ধরন অনিশ্চয়তায় ফেলেছে প্রবাসী কর্মীদের। বিমান চলাচল বন্ধ করায় তাদের সৌদি আরব ও ওমান যাওয়া আটকে গেছে। হঠাৎ ফ্লাইট বন্ধে সৌদিগামী শতাধিক যাত্রী গত বুধবার মাঝপথ থেকে ফেরত এসেছেন। কাতার ‘রি-এন্ট্রি’ ভিসা না দেওয়ায় ১২ হাজারের বেশি কর্মী দেশে আটকা পড়েছেন। ছুটিতে দেশে এসে করোনায় আটকাপড়া প্রায় ২৫ হাজার কর্মীর মালয়েশিয়া যাওয়া হচ্ছে না। একই অবস্থা আবুধাবির ১৪ হাজার কর্মীর।

দেশওয়ারি সরকারি তথ্য না থাকলেও জনশক্তি খাতসংশ্নিষ্টদের ধারণা, অন্তত লাখখানেক কর্মীর বিদেশযাত্রা আটকে রয়েছে করোনায়। অনেকের ভিসার মেয়াদ এর মধ্যেই শেষ হয়েছে। গত অক্টোবর থেকে ধীরে ধীরে হলেও কর্মীদের যাওয়া শুরু হয়েছিল। তিন মাসে প্রায় ২৫ হাজার কর্মী বিদেশে চলেও গেছেন। কিন্তু করোনার নতুন ধরন অনিশ্চয়তার মেঘকে আরও ঘনীভূত করেছে।

শীতে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গত ২১ ডিসেম্বর বিমান যোগাযোগ এক সপ্তাহের জন্য বন্ধ করে সৌদি আরব ও ওমান। এ সিদ্ধান্তে শুধু বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ২১টি ফ্লাইট স্থগিত হয়েছে। এতে পাঁচ হাজার ১০০ যাত্রীর সৌদি যাওয়ার কথা ছিল। বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোকাব্বির হোসেন বলেছেন, ফ্লাইট চালুর পর টিকিট রি-ইস্যু করা হবে। বাড়তি চার্জ লাগবে না।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত