রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

প্রসব পরবর্তী সহবাসে যে বিষয়গুলো মনে রাখা উচিত

বাচ্চা জন্মের পরপরই বেশির ভাগ মহিলারাই প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করে্ন এবং অনেক দুর্বল বোধ করেন। বাচ্চা জন্মের পরপর আপনি আপনার  স্বাস্থ্য নিয়ে  চিন্তিত থাকতে পারেন এমনকি  আবার প্রেগন্যান্ট হয়ে পরার একটি আশঙ্কা আপনার ভিতর কাজ করতে পারে। এই সময় কি করা উচিত আর কি করা উচিত নয় সেগুলো নিয়ে অনেকে দ্বিধাগ্রস্ত হয়ে থাকেন।

শারীরিকভাবে প্রস্তুত হবার চেয়েও বেশি গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে সহবাসের মানসিক প্রস্তুতি। সহবাসের পূর্বে আপনার সঙ্গীর সঙ্গে কথা বলা প্রয়োজন। তিনি এ ব্যাপারে কি চিন্তা ভাবনা করছেন তা খোলামেলা আলোচনা করা প্রয়োজন। একে অপরকে সময় দিন। আপনার পার্টনার এর কোন কিছু নিয়ে কোন দুশ্চিন্তা আছে কিনা সেগুলো জানার চেষ্টা করুন।

আপনি সময় নিন। বাচ্চা জন্মের দুই মাস পরও যদি আপনি ব্যাথা অনুভব করেন তাহলে অবশ্যই আপনার ডাক্তার এর সাথে দেখা করে পরামর্শ নিবেন।

জন্মদানের পর, আপনার মাসিক আবার ফিরে না আসার আগেই বা আপনি বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানো অবস্থাতেই, ৩ সপ্তাহের ভিতর আপনি আবার গর্ভবতী হয়ে পরতে পারেন। আপনি যদি আবার বাচ্চা নিতে ইচ্ছুক না হন তাহলে জন্মদানের পর সহবাসের সময় অবশ্যই জন্ম নিয়ন্ত্রন ব্যবস্থা গ্রহন করুন।

আপনি হাসপাতাল থেকে আসার আগে আপনার ডাক্তার আপনাকে এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়ে দিবেন। আবার আপনি যখন ৬ সপ্তাহ পর চেকআপে যাবেন তখনও এই সম্পর্কে ডাক্তার এর সাথে বিস্তারিত আলাপ করে নিবেন। বা আপনি যেকোনো সময় আপনার ডাক্তারের সাথে এই বিষয়ে আলাপ করে নিতে পারেন।


© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত