সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১

ফণীর ছোবল : বিকেলে উড়িষ্যায়, সন্ধ্যায় খুলনায়

প্রবল ক্ষমতাসম্পন্ন ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ এগিয়ে আসছে ধীর গতিতে এটা আজ শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে উড়িষ্যা উপকূলে আঘাত হানতে পারে এবং বাংলাদেশের খুলনা ও সংলগ্ন উপকূলীয় এলাকায় উঠে আসবে সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ।

গত ৬ ঘণ্টায় ফণী সামনের দিকে এগিয়েছে ঘণ্টায় ৫ কিলোমিটার বেগে। উড়িষ্যা উপকূলে উঠার সময় ফণীর গতিবেগ হতে পারে ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ২০০ থেকে ২১০ কিলোমিটার। তবে তা খুলনা উপকূলে আসার পর গতি ৯০ থেকে ১১০ কিলোমিটারে নেমে আসতে পারে।

আবহাওয়া অফিস মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৭ নম্বর বিপদ সঙ্কেত দেখাতে বলেছে। অপরদিকে আবহাওয়া অফিস চট্টগ্রাম বন্দরের জন্য ৬ নম্বর বিপদ সঙ্কেত এবং কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরের জন্য ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সঙ্কেত জারি করেছে।

চট্টগ্রাম বন্দর থেকে সন্ধ্যা ৬টায় ঘূর্ণিঝড়টি ৯১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার থেকে ৮৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৭৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৭৩৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল। ফণীর কারণে ভোলা, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা ও এর দূরবর্তী চর ও দ্বীপে ৭ নম্বর বিপদ সঙ্কেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

এছাড়া চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর ও এর দূরবর্তী চর ও দ্বীপগুলোর জন্য ৬ নম্বর বিপদ সঙ্কেত দেখাতে বলা হয়েছে।


© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত