বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

ফুসফুস থেকে কফ পরিষ্কার করবেন যেভাবে

ঠাণ্ডা ও কাশি থেকে ফুসফুসে কফ জমতে পারে। ফুসফুস ভালো রাখতে অবশ্যই জমে থাকা কফ পরিষ্কার করা জরুরি।

ফুসফুস থেকে কফ পরিষ্কার করার অনেক পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়।

আসুন জেনে নিই কীভাবে ফুসফুস থেকে কফ পরিষ্কার করবেন–

হাতের দ্বারা পিঠে তালি মারা পদ্ধতি

পিঠে তালি মারতে হবে এবং রোগীকে বলতে হবে ধীরে ধীরে শ্বাস ফেলতে। দুই হাত দিয়ে পিঠে তালি মারা এবং শ্বাস ফেলা।

নিজে বড় বড় লম্বা শ্বাস নেয়া এবং ফেলা এটিকে বলে ‘সক্রিয় শ্বাসের ব্যায়াম’।

কিছু শ্বাসের ব্যায়ামের সস্তা ও সহজলভ্য যন্ত্র আছে- যেমন তিন বল স্পাইরোমিটার- যা দিয়ে জোরে শ্বাস নিয়ে বল ওপরে ওঠাতে হয়।

যেভাবেই কফ পরিষ্কারের উদ্যোগ নেই না কেন, গলা খাকারি বা হঠাৎ হাহ করে শ্বাস ফেলা (Huffing) এবং জোরে কাশি দিয়ে গলা থেকে কফ বের করে আনা একটি কফ পরিষ্কারের উত্তম পদ্ধতি।

গলা খাকারি


গলা খাকারি দেয়ার আগে মাঝামাঝি পরিমাণ শ্বাস টেনে নিন। তার পর হঠাৎ জোরে শ্বাস ফেলুন এবং শ্বাস ফেলার শেষে গলা খাকারি দেয়ার মতো কাশি দিন অথবা জোরে হাহ করে শ্বাস ফেলুন। এটা তাদের জন্য বেশি কাজের যারা জোরে কাশি দিতে পারে না বা শুধু জোরে কাশিতে কফ ওঠে না।

জোরে শ্বাস ফেললে যদি বুকে বাঁশির মতো শব্দ হয়, তবে শ্বাস আরও ধীরে ফেলুন যাতে বুক থেকে বাঁশির মতো শব্দ না অনুভব করেন বা না শোনা যায়। বাঁশির মতো শব্দ অর্থ আপনার শ্বাসনালির পথ সংকীর্ণ বা বন্ধ হয়ে যাওয়া এবং কফ বের হওয়ার পথ বন্ধ হয়ে যাওয়া।

জোরে কাশি দেয়া

কাশি একটা উত্তম পদ্ধতি ফুসফুসের ভেতর জমে থাকা কফ পরিষ্কার করার জন্য।

কাশি দিয়ে কফ বের করার পদ্ধতি

প্রথমে ধীরে ধীরে লম্বা শ্বাস নিন। শ্বাসটি কয়েক সেকেন্ড ধরে রাখুন যাতে ফুসফুসের ভেতরে বাতাসের চাপ সৃষ্টি হয়।

এর পর হঠাৎ করে শক্তি দিয়ে কাশির সঙ্গে বাতাস ফেলে দিন। অর্থাৎ জোরে শ্বাস ছাড়ুন যাতে পেটের মাংস শক্ত হয়।

লেখক:
অধ্যাপক ডা. মো. রাশিদুল হাসান
বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ
ইনজিনিয়াস পালমোফিট, মোহাম্মদপুর, ঢাকা।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত