বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

বখাটের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত এক ছাত্রী

কিশোরগঞ্জে প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় বখাটের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন আক্তারুন্নেছা বন্যা (১৪) নামে দশম শ্রেণির এক ছাত্রী। শনিবার বিকেলে কোচিং করতে যাওয়ার পথে ওই ছাত্রী হামলার শিকার হয়। 

হামলাকারী হাসান বাড়ির পাশের রাস্তায় মেয়েটিকে চাকু দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে গুরুতর আহত করে। বর্তমানে মেয়েটি কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপতাালে চিকিৎসাধীন আছেন। 

আক্তারুন্নেছা বন্যা কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার লতিবাবাদ ইউনিয়নের পাবইকান্দি গ্রামের কামাল হোসেন রতনের মেয়ে এবং কাটাবাড়িয়া এআর খান উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী। পুলিশ এখনো অভিযুক্ত বখাটে হাসান (১৮) কে আটক করতে পারেনি। বখাটে হাসান একই গ্রামের হাতিম মিয়ার ছেলে।

পুলিশ, এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, কয়েক দিন ধরে বন্যাকে বখাটে হাসান প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে রাজি হতে চাপ প্রয়োগ করে আসছিল। কিন্তু বন্যা এতে বরাবরই অসম্মতি জানায়। গত কিছুদিন ধরে কোচিংয়ে যাওয়া-আসার পথেও সে বন্যাকে উত্যক্ত করত। বন্যা বিষয়টি তারা বাবা-মাকে জানালে এ নিয়ে হাসানের পরিবারের কাছে অভিযোগও করা হয়। পরিবারে অভিযোগ করায় হাসান ক্ষিপ্ত হয়। কোচিং করতে যাওয়ার পথে শনিবার বিকেলে বন্যাকে রাস্তায় আটকে আবারও প্রেমের প্রস্তাব দেয় হাসান। বন্যা অস্বীকৃতি জানালে হাসান চাকু দিয়ে তাকে আঘাত করে। বন্যাকে রাস্তার ওপরে ফেলে চাকু দিয়ে পিঠ, মাথা ও কোমড়সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে উপর্যুপরি আঘাতে ক্ষতবিক্ষত করে। বন্যার চিৎকারে কয়েকজন এলাকাবাসী এগিয়ে গেলে বখাটে হাসান পালিয়ে যায়।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত