মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

Advertisement

বগুড়ায় মাজারের দানবাক্সে ২৭ লাখ টাকা

Advertisement

বগুড়ার হজরত শাহ সুলতান মাহমুদ বলখী (রহ.) মাজারের আটটি দানবাক্সের টাকা দুদিন ধরে গণনা করা হলো। সোমবার (১১ নভেম্বর) থেকে দানবাক্সের টাকা গণনা শুরু করে মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় শেষ করা হয়।

গত তিন মাসে মানুষের দানকৃত টাকার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৬ লাখ ৯৭ হাজার ৭৭৭ টাকা। দানবাক্সগুলো থেকে পাওয়া গেছে ১৪টি স্বর্ণের নাক ফুলসহ কিছু স্বর্ণালঙ্কার এবং বৈদেশিক মুদ্রা।

বুধবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করে মাজার কমিটির কোষাধ্যক্ষ ওবায়দুর রহমান বলেন, সোমবার থেকে টাকা গণনা শুরু করে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গণনা করা শেষ হয়।

মহাস্থান মাজার কমিটির সভাপতি বগুড়া জেলা প্রশাসকের নির্দেশে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাসিম রেজার তত্ত্বাবধানে সোমবার প্রথম পর্যায়ে পাঁচটি দানবাক্স খোলা হয়। অপর তিনটি দানবাক্স মঙ্গলবার খোলা হয়। দুদিন ধরে দানবাক্সের টাকা গণনার কাজ চলে। মহাস্থান উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০ জন শিক্ষার্থীর পাশাপাশি স্থানীয় রূপালী ব্যাংকের ১০ জন কর্মকর্তা টাকা গণনার কাজে অংশ নেন।

মহাস্থান মাজার কমিটি জানায়, মাজারের চারদিকে মোট নয়টি দানবাক্স রয়েছে। এর মধ্যে একটি অকেজো। অন্য আটটি দানবাক্সে মাজার জিয়ারত করতে আসা লোকজনসহ পর্যটক ও দর্শনার্থীরা টাকা-পয়সা ও স্বর্ণালঙ্কার দেন। মানুষের দানের টাকা মাজার এবং মসজিদের উন্নয়নকাজে ব্যয় করা হয়। দানবাক্সে পাওয়া টাকা বরাবরের মতো এবারও মাজারের পাশেই রূপালী ব্যাংকে জমা রাখা হয়েছে।

Advertisement


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত