বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০

বনানীতে স্ত্রীর পাশে চিরনিদ্রায় ব্যারিস্টার রফিক-উল হক

বনানীতে স্ত্রী ফরিদা হকের কবরের পাশে শায়িত হলেন খ্যাতিমান আইনজীবী ও সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার রফিক-উল হক। শনিবার (২৪ অক্টোবর) বেলা তিনটার কিছু আগে স্ত্রীর কবরের পাশে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

এর আগে সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে আদ-দ্বীন হাসপাতাল প্রাঙ্গণে রফিক-উল হকের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। তিনি ওই হাসপাতালের চেয়ারম্যান ছিলেন। রফিক-উল হকের প্রথম জানাজায় ইমামতি করেন আদ-দ্বীন জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ সাইদুল ইসলাম।

পরে মরদেহ পল্টনের বাসায় নেয়া হয়। বাদ জোহর বায়তুল মোকাররম মসজিদ প্রাঙ্গণে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এ জানাজা নামাজে ইমামতি করেন বায়তুল মোকাররমের সিনিয়র পেশ ইমাম মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান।

বায়তুল মোকাররমে জানাজা শেষে ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের মরদেহ নেয়া হয় তার দীর্ঘদিনের কর্মস্থল সুপ্রিম কোর্টে। বেলা দুইটা আট মিনিটে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি প্রাঙ্গণে রফিক-উল হকের তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা শেষে তার মরদেহ বনানী কবরস্থানে নেয়া হয়।

দীর্ঘদিনের কর্মস্থল সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে তার তৃতীয় নামাজে জানাজার মধ্যে দিয়ে ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের শেষ বিদায় হয় সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গন থেকে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধান বিচারপতি, আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি, অ্যাটর্নি জেনারেল, ঢাকা দক্ষিণের মেয়র।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত