বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

বিয়ের গাড়িতে ট্রেনের ধাক্কা : বর-কনেসহ নিহত ৯

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় বিয়ের মাইক্রোবাসে ট্রেনের ধাক্কায় বর-কনে ও শিশুসহ অন্তত ৯ জন নিহত হয়েছেন। সোমবার বিকেল সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার সলপ স্টেশনের উত্তরে পঞ্চক্রোশী আলী আহম্মদ উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশে উন্মুক্ত লেভেল ক্রসিং পারাপারের সময় রাজশাহী থেকে ঢাকাগামী পদ্মা এক্সপেসের সঙ্গে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মাইক্রোবাসের চার যাত্রীসহ আরও ১০ জন আহত হন।

নিহতদের মধ্যে বর সদর উপজেলার কান্দাপাড়া গ্রামের আলতাব হোসেনের ছেলে রাজন হোসেন (২৫) ও কনে উল্লাপাড়ার চরঘাটিনার সুমাইয়া খাতুনের (২০) পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। নিহত বাকিদের নাম-পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

উল্লাপাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা হতাহতের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, উন্মুক্ত লেভেল ক্রসিং পারাপারের সময় বিয়ের বহরের একটি মাইক্রোবাস পদ্মা এক্সপ্রেসের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে বেশ কিছুদূর পর্যন্ত ছেঁচড়ে যায়। এতে ৯ জন মারা যান।

তিনি আরও জানান, অরক্ষিত রেলক্রসিংয়ের কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। ওই ক্রসিংয়ে কোনো ব্যারিয়ার বা বার্জ ছিল না। এমনকি সেখানে রেল বিভাগের কোনো পাহারাও নেই।

সিরাজগঞ্জ জিআরপি থানার ওসি হারুন মজুমদার ও দমকল বাহিনীর সহকারী উপপরিচালক আবদুল হামিদ জানান, বরযাত্রীবাহী দুটি বিয়ের গাড়ি উল্লাপাড়ার ঘাটিনা থেকে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কালিয়া কান্দাপাড়ায় যাচ্ছিল। সলপ স্টেশনের উত্তর পাশে উন্মুক্ত লেভেল ক্রসিং পারাপারের সময় একটি মাইক্রোবাস (ঢাকা মেট্রো-চ-১৫-৪১৫৯) ট্রেনের সঙ্গে ধাক্কা খেলে বর-কনেসহ কমপক্ষে ৯ জন মারা যান। আহত হন ট্রেনের আরোহীসহ কমপক্ষে ১০ জন। তাদের মধ্যে চারজনকে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। লাশ উদ্ধারের পর আপাতত সলপ স্টেশনের পাশে রাখা হয়েছে। বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর আক্রোশ থেকে ট্রেনটি রক্ষায় কাজ করছে দমকল বাহিনী ও পুলিশ।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত