সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১

ব্রিটিশ রানীর সম্মাননা পাচ্ছেন মুক্তিযুদ্ধের বন্ধু জুলিয়ান ফ্রান্সিস

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় শরণার্থীদের সহায়তায় কাজ করে মুক্তিযুদ্ধের বন্ধু হয়ে ওঠা ব্রিটিশ নাগরিক জুলিয়ান ফ্রান্সিস। তাকে বিশেষ সম্মাননা দিতে যাচ্ছে দেশটির পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ বিষয়ক দপ্তর (এফসিও)।

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে যুক্তরাজ্যের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে অসামান্য অবদান রাখায় এফসিও এই পুরস্কার ঘোষণা করে থাকে। এ পুরস্কার ব্রিটিশ রানীর নববর্ষের সম্মাননা হিসেবে পরিচিত।

এফসিওর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এ বছর ৯৩টি পুরস্কার ঘোষণা করেছে তারা। এই তালিকার ডিপ্লোম্যাটিক সার্ভিস অ্যান্ড ওভারসিজ নিউ ইয়ার-২০১৯ অনার্স ক্যাটাগরিতে স্থান পেয়েছেন জুলিয়ান ফ্রান্সিস।

জুলিয়ান ফ্রান্সিসের বাংলাদেশে অবদান প্রসঙ্গে এফসিওর বিবৃতিতে বলা হয়, পাঁচ দশকের বেশি সময় ধরে তিনি বাংলাদেশের সবচেয়ে ঝুঁকিতে থাকা এবং অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর সহায়তায় দৃঢ়ভাবে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

এতে আরও বলা হয়, ‘বাংলাদেশের সমাজ ও সংস্কৃতি সম্পর্কে গভীর জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে তিনি অতি দরিদ্র এবং প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে ব্যাপক মানবিক ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের মূল ব্যক্তিত্বে পরিণত হন। জুলিয়ান ফ্রান্সিস বাংলাদেশে অত্যন্ত সম্মানিত ও পরিচিত ব্যক্তিত্ব এবং তার কর্মকান্ডে সত্যিকার অর্থেই যুক্তরাজ্যের স্বার্থ প্রতিফলিত হয়েছে।’


© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত