রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২

মনা : আরজু আহমেদ

মনা!
তোমারে নিয়া লিখতে গেলে ভেতরডা কেমন মুচরাইয়া ওঠে।
তুমি দুঃস্বপ্নের লাহান আমার পিছু লও রাত-বিরাতে।
ঘুমের ঘোরে আমি হাত বাড়াইয়া ছুঁইতে গিয়া যা পাই,
তার সবটা জুড়াইয়া খা খা শূন্যতা।
তোমারে আর পাওয়া হয় না, মনা।
তুমি নিখোঁজ। নিখোঁজই রইলা।
দেখা দিলা না।চিঠি দিলা না।
তোমার লেইগা সবুর করতে গিয়া
আমার মাঝপথে আজরাঈলের লগেও
সাক্ষাৎ হইয়া যায়।
তবুও তোমার অতীত ছাইড়া
আমার পথে আসার সময় হয় না।

মনা!
তোমার জন্য ভর-দুপুরে মন কান্দে।
কুইয়া কুইয়া কান্দে।
মায়ায় জড়াইয়া কই হারায় গেলা?
ফিরোনের খবর নাই।
তোমার কোনো খোঁজ খবর নাই।
এমন একলা আমি কেমনে বাঁচুম?
ভাইবা দেখো তো মনা,
এইভাবে কী বাঁচন যায়?
রাস্তার কুত্তা-বিলাইরাও সঙ্গী খোঁজে।
আমি মানুষ হইয়াও তোমার খোঁজ পাই না।

মনা!
আমারে একলা রাইখা ঐ আন্ধারে
তুমি কেমনে থাকো?
তোমার চক্ষু দুইডা ভুলবার পারুম না।
তোমার চুলের ভিজা ঘ্রাণ
আমার মগজে লাইগা আছে।
তোমারে না দেইখা থাকতে পারুম না।
কই গেলা মনা?


© 2022 - Deshbarta Magazine. All Rights Reserved.