বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০

রাজশাহীতে ছুরিকাঘাতে ছাত্রলীগ নেতাকে খুন

রাজশাহীতে ছুরিকাঘাতে সুজন আলী (২৮) নামে ছাত্রলীগের এক নেতা খুন হয়েছেন।

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে জেলার তানোর উপজেলা সদরের গোল্লাপাড়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ছাত্রলীগ নেতা সুজন তানোর পৌরসভার সাত নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। পৌরসভার রায়চাঁনআক্কা মহল্লায় সুজনের বাড়ি। তার বাবার নাম সাজ্জাদ আলী।

স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, সুজনের গোল্লাপাড়া বাজারে ফলের দোকান ছিল। বুধবার সন্ধ্যায় পাশের আরেক ফলের দোকানের মালিক আলমগীরের সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এ সময় সুজনের বুকে ছুরিকাঘাত করে আলমগীরের ছোট ছেলে রাকিব।

এর ফলে সুজন গুরুতর আহত হন। তখন স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে তানোর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে ঘটনার পর পরই স্থানীয় লোকজন হামলাকারী আলমগীরের দোকান ভাঙচুর করেন। বিক্ষুব্ধরা আলমগীর এবং তার বড় ছেলে রায়হানকে মারধর করেন। এরপর তাদের পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়।

এসময় আলমগীরের আরেক ছেলে ছুরিকাঘাতকারী রাকিব পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ তাকে তানোর পৌরসভার কুঠিপাড়া মহল্লার একটি বাড়ির টয়লেট থেকে আটক করে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ইসমত আরা জানান, সুজনের বুকে গভীর ক্ষত রয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে হাসপাতালে পৌঁছার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

এ ব্যাপারে তানোর থানার ওসি খাইরুল ইসলাম বলেন, হামলাকারীদের আটক করা হয়েছে। লাশ তানোর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত