শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১

লকডাউনে বেড়ে যাওয়া ওজন কমাতে বলছে সরকার

লকডাউনে ঘরে বসে থাকতে হয়। শারীরিক পরিশ্রমের কাজ করা হয় না। এর অনিবার্য ফল হলো মুটিয়ে যাওয়া। তাই লকডাউন শেষ হওয়ার পর এবার লোকজনকে স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া ও ওজন কমানোর পরামর্শ দিচ্ছে যুক্তরাজ্য সরকার।

সাম্প্রতিক এক জরিপে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে জনস্বাস্থ্যের ওপর লকডাউনের প্রভাব কাটাতে পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহণের পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রেও নাগরিকরা যাতে আরো সক্রিয় হয়ে ওঠে, ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের পক্ষ থেকে সে বিষয়ে নানাভাবে উৎসাহ প্রদান করা হচ্ছে। তারা ওজন কমানোর বিষয়ে  নানা ধরনের অ্যাপস ও পরিকল্পনা সরবরাহ করছে। খবর এনডিটিভির।

আরও পড়ুন

কেমন হতে পারে করোনার চতুর্থ ঢেউ?

করোনায় মৃত্যুহারে ভারতকে ছাড়িয়ে গেছে বাংলাদেশ

দেশটির ৪১ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিক বলেছেন, গত বছর প্রথমবার লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকে তাদের ওজন বাড়তে শুরু করেছে। সারা দেশে ৫ হাজার মানুষের ওপর ২ জুলাই থেকে ৮ জুলাই পর্যন্ত জরিপ চালিয়ে এই তথ্য পেয়েছে ওপিনিয়াম নামের একটি সংস্থা। এরপর জাতীয় স্বাস্থ্য সার্ভিস নাগরিকদের ওজন কমাতে নানা পরিকল্পনা শুরু করেছে।

পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ডের প্রধান পুষ্টিবিদ অ্যালিসন টেডস্টোন এক ই-মেইল বার্তায় বলেন, ‘গত ১৬ মাসে দৈনন্দিন জীবন যাপনে নাগরিকদের অভ্যাসের অনেক পরিবর্তন ঘটেছে। সুতরাং লোকদের ওজন বেড়ে গেছে, এমন খবরে অবাক হওয়ার কিছু নেই।’


© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত