মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ : ১২ লাখ টাকা জরিমানা

রাজধানীর শনিরআখড়া এলাকায় নিউ ক্যাসেল ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগের অভিযোগে ১২ লাখ টাকা জরিমানা করেছে ঢাকা ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (ডিপিডিসি)। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে বরখাস্ত করা হয়েছে দুই কর্মচারীকে। বুধবার (৩১ অক্টোবর) কোম্পানির স্পেশাল টাস্কফোর্স স্কুলটিকে এ জরিমানা করে।
কোম্পানি সচিব জয়ন্ত কুমার সিকদারের (যুগ্ম-সচিব) এর অধীনে পরিচালিত টাস্কফোর্স জানায়, অভিযান চলার সময় নিউ ক্যাসেল ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে মিটার বাইপাস করে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়েছে। এই জায়গার গ্রাহকের নাম মো. শফিউদ্দিন দুলাল হলেও বিদ্যুৎ কারচুপিতে জড়িত ছিলেন স্কুলটির প্রধান খান মোজাম্মেল হক মিঠু।
জয়ন্ত কুমার জানান, স্পেশাল টাস্কফোর্সের এই অভিযানে স্কুল প্রধান বিদ্যুৎ কারচুপির সত্যতা স্বীকার করে মিটার রিডার ফয়সাল ও টেকনিক্যাল সুপারভাইজার আশরাফুলকে দায়ী করেন। তিনি বলেন, ‘এই আশরাফুল ও মো. ফয়সালের সহযোগিতায় ৭০ হাজার টাকার বিনিময়ে মিটার বাইপাসের মাধ্যমে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহার করে আসছিলেন এবং এই কাজে সহযোগিতার জন্য মিটার রিডারকে প্রতি মাসে ১০হাজার টাকা ঘুষ দেওয়ার প্রমাণ পেয়েছি আমরা। এতে করে এই গ্রাহকের কাছ থেকে মাসে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকার বিদ্যুৎ বিল আসার কথা থাকলেও সেখানে আসছে মাত্র ৫ থেকে ৬ হাজার টাকা। গ্রাহকের লেজার পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায় প্রায় ৪বছর ধরে এই কারচুপির ঘটনা ঘটছে। স্কুলের এই বিদ্যুৎ কারচুপির ঘটনায় আমরা ১২ লাখ টাকা জরিমানা করেছি। শুধু তাই নয় বিদ্যুৎ সংযোগে দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় মিটার রিডার ফয়সাল ও টেকনিক্যাল সুপারভাইজার আশরাফুলকে চাকুরিচ্যুত করা হয়েছে।’ এই দুই জনের নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান আরমা ইলেক্ট্রিক কোম্পানির বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান তিনি।

টাস্কফোর্স জানায়, ২০১৫ সাল থেকে ডিপিডিসিরর কোম্পানি সচিনের অধীনে প্রাতিষ্ঠানিক সুশাসন প্রতিষ্ঠা, রাজস্ব আয় বৃদ্ধি ও দুর্নীতি প্রতিরোধে গঠিত এই স্পেশাল টাস্কফোর্স অভিযানের মাধ্যমে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩৫ কোটি টাকা রাজস্ব আদায় করা হয়েছে।

 


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত