বুধবার, ১০ আগস্ট ২০২২

শিশুর নাম রাখার আগে যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখবেন

শিশুর নাম রাখা নিয়ে বাবা-মার উৎসাহের যেন শেষ নেই। গর্ভধারণের পর থেকেই চলতে থাকে জল্পনা-কল্পনা। বাবা-মার সঙ্গে যুক্ত হন আত্মীয়-স্বজনও। আগত সন্তানের নাম কী হবে, তা নিয়ে চলে গবেষণা। মেয়ে বা ছেলে যা-ই হোক। তৈরি করা হয় নামের তালিকা। তাই আগে থেকেই একটু চিন্তা-ভাবনা করা ভালো।

শিশুর নাম রাখার আগে ৫টি বিষয়ে নজর দেওয়া উচিত। আসুন জেনে নেই বিষয়গুলো সম্পর্কে—

নামের উচ্চারণ: নামের উচ্চারণের দিকে খেয়াল করুন আগেই। এমন নাম রাখবেন না, যাতে উচ্চারণ করতে মানুষের কষ্ট হয়। তাই যে নামটি রাখবেন, সেটি কাগজে লিখুন। তারপর আত্মীয়-স্বজনদের জিজ্ঞাসা করুন। তারা যদি উচ্চারণ করতে পারেন, তাহলে নামটি রাখুন। তা না হলে বিকল্প নাম ভাবুন।

আরও পড়ুন

সবার পছন্দ: যে নামটি রাখতে চান, তা সবাইকে শোনান। যদি নাম শুনে সবাই পছন্দ করে, তাহলে রাখুন। না হলে নামটি রাখার আগে আরেকটু ভাবুন। কারণ সন্তানকে কিন্তু সারাজীবন এ নামের সঙ্গেই কাটাতে হবে। নামের কারণে বিব্রত হতে পারে। তা নিশ্চয়ই আপনি চাইবেন না।

ডাকনাম: আসল নামের পর ডাকনাম নিয়ে সচেতন হোন। অনেকেই আসল নামটি ছোট করে নেয়। সেটাই হয়ে যায় ডাকনাম। এতে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তা অস্বস্তিকর ও বিব্রতকর হয়ে ওঠে। ফলে নামের বারোটা তো বাজেই, তার ওপর অদ্ভুত ডাকনামের জন্য সমস্যায় পড়তে হয়।

নামের অর্থ: নামের ক্ষেত্রে অর্থও কিন্তু কম নয়। নাম চূড়ান্ত হওয়ার আগে এ বিষয়ে অবশ্যই ভেবে দেখবেন। নামের অর্থ যেন সহজেই খুঁজে পাওয়া যায়। শুধু বাংলায় নয়, ইংরেজি, আরবিসহ যে কোন ভাষায়ই যেন নামের অর্থ থাকে। তাহলে সন্তান বড় হয়ে দেশের বাইরে গেলে হাজারটা প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে না।

সুন্দর নাম: সর্বোপরি নিজের সন্তানের নাম সুন্দর রাখার চেষ্টা করুন। আপনার সন্তানের নাম যেন ইউনিক হয়। আপনি নিশ্চয়ই চাইবেন, আপনার সন্তানের নাম সবার নামের চেয়ে আলাদা এবং সুন্দর হোক। তাই একটু পরিশ্রম তো করতেই হবে। তবে ইউনিক করতে গিয়ে এমন নাম রাখবেন না, যার কোন অর্থ নেই।


© 2022 - Deshbarta Magazine. All Rights Reserved.