শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১

সিসিটিভির ফুটেজে মিলল পরীমনিকে ধর্ষণ চেষ্টার প্রমাণ

অমি, যাকে আসামি করেছেন পরীমনি তার সাথেই গিয়েছিলেন বোট ক্লাবে। পুলিশ বলছে, পরীমনিকে নাসিরের হাতে তুলে দিয়েছিলেন অমি। পানীয়র সঙ্গে নেশাদ্রব্য খাইয়ে পরীমনিকে ধর্ষণচেষ্টা হয় সেখানে। বোট ক্লাবের সিসিটিভি ফুটেজে ঘটনার প্রমাণও মিলেছে। পুলিশের কাছে দোষ স্বীকার করেছেন অমি ও নাসির।

৯ জুন রাত ১২ টা ২২ মিনিট। সিসিটিভি ক্যামেরা ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, ঢাকা বোট ক্লাবের সামনে দাঁড়াল একটি কালো গাড়ি। নামতে দেখা যায় পরীমনি, জিমি ও অমিকে। কিছুক্ষণ পর গাড়ি থেকে বের হন বনিও। ক্লাবের রিসিপশনেও অমির সঙ্গে পরীমনিসহ অন্যদের ঢুকেতে দেখা যায়। সেখানে আগে থেকেই ছিলেন নাসির ইউ আহমেদ।

দেড় ঘণ্টা পর পরীমনীকে অচেতন অবস্থায় কোলে করে দৌড়ে বের হতে দেখা যায় জিমি ও একজন নিরাপত্তা প্রহরীকে। পেছন আসেন অমিও। ক্লাবে অমির কালো গাড়িতে গেলেও পরীমনি ফিরেছেন সাদা রঙের একটি গাড়িতে। এসময় অমি সাহায্যতো করেই নি উল্টো শাসিয়েছেন সবাইকে।


© দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত