সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২

হাসান হামিদ-এর কবিতা : বালিকার চাওয়া

প্রত্যেক বালিকাই চায়
জীবনেরে জেনে, জেনে ছাই আর আগুনেরে;
মেঘের স্রোত দিয়ে কিছুটা আকাশ ভেঙ্গে
এপার-ওপার গোপন পথে
জানালার দেহ নিঃশ্বাস বাড়ানোর পর,
এবেলায় তাকে নিয়ে পুরো পৃষ্ঠা না হলেও
দু’লাইনের একটা কবিতা কেউ লিখুক।
শরীরের গড়ন বর্ণনায়,
কিছুটা মানপত্রের ভাষার মতোন;
লিখুক কত দহনের নিমগ্ন পিপাসা
পিঁড়ি পেতে বসে আছে, বালিকা চায়;
কেউ অন্তত জানুক তরতাজা মমতায় তার দেহে
বয়স কীভাবে নেমে এসেছে,
চোখের নেশা ক্রমশ অন্ধকার করেছে
আর গিলে ফেলেছে সমস্ত বিশ্বাস।
বালিকা রোদ চায়, রোদের আগুনে শুকাতে চায় ক্ষত;
এ বেলার আলস্য, জুড়াতে চায় আকুলি-বিকুলি;
মিথ্যা কার্পণ্যে লুকাতে চায় প্রেম ও বেদনাসমূহ,
অ্যাশট্রেতে জমা করে ফেলে কিছু ভুল অজান্তে।
বালিকা চায় স্বপ্নের রাতকানা প্রতিধ্বনিগুলো
আর যেন না শুনতে হয়, অন্তর্বাস বিকিয়ে
স্বাধীনতা যেন কিনতে না হয়,

ভালোবাসা না পেতে পেতে যেনো জানতে না হয়
কেন পিছে ফিরে দেখা হয় না লবঙ্গ বাতাস।
কেন অবিশ্বাসের ব্যক্তিগত নির্মাণ ধ্বসে পড়ে দূর্যোগ ছাড়াই।
বালিকা বড় বেশি ওম খোঁজে, বিপদটা এখানেই।


© 2022 - Deshbarta Magazine. All Rights Reserved.