বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

হুহু করে বাড়ছে পানি

তিন দিনের টানা ভারী বর্ষণ আর উজান থেকে বেয়ে আসা পানিতে পঞ্চগড়ের তালমা নদীর রাবারড্যামের ছিদ্র দিয়ে পানি প্রবেশ করে উজানের বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

কৃত্তিম বাতাস ছাড়া পানিতে রাবারড্যামটি ফুলে নদীর উজানে অবস্থিত চা বাগানসহ ফসলের ক্ষেতে হুহু করে পানি ঢুকছে। এই অবস্থা চলতে থাকলে উজানের ১০টি গ্রামের দুই সহস্রাধিক মানুষ কৃত্তিম বন্যার শিকার হবে। এতে চাবাগানসহ প্রায় দুইশ একর জমির ফসল পানির নিচে তলিয়ে যাবে।

স্থানীয়রা জানান, শুষ্ক মৌসূমে সেচ সুবিধার জন্য ২০০৬-০৭ অর্থবছরে পঞ্চগড় সদর উপজেলার তালমা নদীর তালমা এলাকায় প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে রাবারড্যামটি নির্মাণ করে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর। ২০১৪ সালে ড্যামটিতে ত্রুটি দেখা দেয়। পরে ২০১৮ সালে প্রায় ৫ লাখ টাকা ব্যয়ে ড্যামটি সংস্কার করা হয়।

গত বছরের ডিসেম্বরে বোরো মৌসুমের শুরুতে যখন সেচ কার্যক্রম শুরু হবে, ঠিক সেই মুহূর্তে স্থানীয় কয়েকজন যুবক রাতের আঁধারে ড্যামটির রাবার এক ফুটের মত কেটে দেয়। এ বিষয়ে তালমা বারাবারড্যাম পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির নেতারা জেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন। পরে রাবারের আরও কয়েক স্থানে ছিদ্র হয়ে যায়।

পরবর্তিতে এটি মেরামতের কোন উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। এই রাবারড্যামের রাবার কৃত্তিম বাতাস দিয়ে ফুলিয়ে নদীর উজানে পানি সংরক্ষণ করে শুষ্ক মৌসূমে সেচ কাজে ব্যবহার করা হয়।

এদিকে গত কয়েক দিনের ভারী বর্ষণ আর উজান থেকে আসা ঢলে রাবারটিতে পানি ঢুকে ফুলতে থাকে। শনিবার আপনা আপনি ড্যামের রাবার ১৪ ফুট পর্যন্ত ফুলে যায়। ফলে নদীর ভাটির দিকে তেমন পানি না থাকলেও উজানের বিভিন্ন এলাকায় পানি প্রবেশ করে।


©  দেশবার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত